logo
ঢাকাবৃহস্পতিবার , ৫ আগস্ট ২০২১

ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৫ ডেডিকেটেড হাসপাতাল

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা
আগস্ট ৫, ২০২১ ৭:১৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

দেশে প্রতিদিনই ডেঙ্গু রোগী বাড়ছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পাঁচটি ডেঙ্গু ডেডিকেটেড হাসপাতাল নির্ধারণ করেছে। তবে গত দুই দিনে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমতির দিকে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৩৭ জন ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার তথ্য অনুযায়ী, পাঁচটি ডেঙ্গু ডেডিকেটেড সরকারি হাসপাতাল হচ্ছে—স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল, আমিনবাজার ২০ শয্যা হাসপাতাল, টঙ্গীর আহসান উল্লাহ মাস্টার ২৫০ শয্যা হাসপাতাল, মিরপুর লালকুটি হাসপাতাল ও বাংলাদেশ রেলওয়ে হাসপাতাল। এ ছাড়া ঢাকা শিশু হাসপাতাল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়সহ (বিএসএমএমইউ) বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়তে থাকায় ঢাকা শিশু হাসপাতালে ১৬ শয্যার একটি আলাদা কর্নার খোলা হয়েছে। হাসপাতালের তথ্য অনুযায়ী, গত মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত হাসপাতালটিতে ডেঙ্গু আক্রান্ত ৩৫ শিশু ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে সাত শিশু নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি রয়েছে। তাদের অবস্থা সংকটাপন্ন বলে হাসপাতালের জনসংযোগ কর্মকর্তা আবদুল হাকিম এই প্রতিবেদককে জানান।

সরেজমিন দেখা গেছে, হাসপাতালের নিচতলার ২ নম্বর ওয়ার্ডে ডেঙ্গু কর্নার করা হয়েছে। ফরিদপুর সদর উপজেলার সবুজ হোসেনের মেয়ে সাঈদা আক্তারকে টাইফয়েড সন্দেহে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় ১ আগস্ট তাকে ঢাকা শিশু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার ডেঙ্গু শনাক্ত হয়।

এই হাসপাতালে ভর্তি ছয় মাস বয়সী আবিহা রামিনের মা মেহের আন্নি বলেন, তাঁর বাসা ধানমন্ডির সেন্ট্রাল রোডে। চার দিন আগে ভর্তি হন। তাঁর সন্তান সুস্থ হয়ে উঠছে। আজ বৃহস্পতিবার তাকে ছুটি দেওয়া হবে। মোহাম্মদপুরের আদাবর এলাকার রোগী শিশু মোহাম্মদ অন্তু গত শনিবার ভর্তি হয়। তার অবস্থা উন্নতির দিকে।

স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে গতকাল বুধবার পর্যন্ত ১৬৮ জন রোগী ভর্তি আছেন। এদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় রোগী ভর্তি হয়েছেন ৪৪ জন। ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ায় এই হাসপাতালের বহির্বিভাগের আটতলায় আলাদা একটি ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। এ ছাড়া শিশু বিভাগেও আলাদা কর্নার করা হয়েছে।

আমাদের মিটফোর্ড প্রতিনিধি জানান, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতালে কেউ রোগী হিসেবে ভর্তি হতে, কেউবা ডেঙ্গু পরীক্ষা করাতে এসেছেন। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার ভীতি এখন সবার মধ্যেই। আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীদের মধ্যেও।

মিটফোর্ড হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা ইউনিট চালু করা হলেও, যে হারে রোগী ভর্তি হচ্ছে তাতে চিকিৎসা দেওয়া কঠিন হয়ে পড়বে।

জাতীয় ম্যালেরিয়া নির্মূল ও এডিস মশা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচির ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. আফসানা আলমগীর খান আজকের পত্রিকাকে বলেন, মানুষের অসচেতনতায় ডেঙ্গু পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। মানুষকে সচেতন করতে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন আরও ২৩৭ জন। এদের মধ্যে ২২১ জনই রাজধানীতে। গত চার দিনে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হন ১ হাজার ২৫ জন। দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে রোগী ভর্তি আছেন ১ হাজার ৫৮ জন। এদের মধ্যে রাজধানীতে ১ হাজার ৪ ও বাইরে ৫৪ জন।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।