logo
ঢাকাবুধবার , ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বাবাকে বাঁচাতে রাবি শিক্ষার্থীর আকুতি

রাজিয়া সুলতানা, রাবি প্রতিনিধি
ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২১ ২:০৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বাংলা বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী সজীব কুমার মণ্ডল। বাড়ি রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামে। বড়ভাই সবুজ কুমার মণ্ডল পড়ছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগে। পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি বাবা সুনীল কুমার মণ্ডল। আর্থিক অবস্থা খুবই নাজুক।

তার বাবা গত ২৭ জানুয়ারি ম্যাসিভ হার্ট অ্যাটাকে (গুরুতর) আক্রান্ত হয়েছেন। চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরীক্ষা নিরীক্ষা করে ডাক্তার জানান কিডনী সমস্যা গুরুতর। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে দ্রুত ভারতে নেওয়া প্রয়োজন। এ জন্য প্রয়োজন প্রায় ১২ লাখ টাকা। কিন্তু তার পারিবারের পক্ষে এত টাকা জোগাড় করা সম্ভব নয়। এমন সময়ে বাবাকে বাঁচাতে টাকার জন্য দিশেহারা হয়ে পড়েছে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ভাই।

সজীব বলেন, ‘আমার বাবা একজন কৃষক। গত ২৭ জানুয়ারি হঠাৎ তার গুরুতর হার্ট অ্যাটাক হয়। আমরা দ্রুত তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করাই। চিকিৎসকরা তার শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলেন, দ্রুত তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারত নিয়ে যেতে হবে। না হলে তাকে বাঁচানো সম্ভব হবে না।’

‘বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কিডনী বিশেষজ্ঞ ডা. মোহা. নূরুল ইসলাম ও কার্ডিওলোজিস্ট ডা. মো. রইস উদ্দিনের কাছে বাবার চিকিৎসা চলছে’ যোগ করেন সজীব।

সজীবের বড় ভাই সবুজ বলেন, আমাদের পরিবারের সর্বস্ব দিয়েও এই মুহুর্তে আমার পরিবারের পক্ষে বাবার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা সম্ভব হচ্ছে না। আমাদের সম্বল বলতে কিছুই নেই। নিজের চোখের সামনে বাবা কাতরাচ্ছে, অথচ কিছুই করতে পারছি না এর চেয়ে কষ্টকর কিছু নেই।

সমাজের বিত্তবান ব্যক্তিদের কাছে বাবাকে বাঁচানোর জন্য সহায়তা চেয়েছে সজীব ও সবুজ।

যোগাযোগের নম্বর-

সজীব কুমার রায়- ০১৭৯৩৪২৭৯৫৯

সাহায্য পাঠাতে-

নগদ- ০১৭৯৩৪২৭৯৫৯

বিকাশ- ০১৭৯৩৪২৭৯৫৯

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।