logo
ঢাকারবিবার , ১৫ আগস্ট ২০২১

মোবাইলে পাঠানো হলো শোক বার্তার দেড় লাখ ভয়েস কল

নিজস্ব প্রতিবেদক
আগস্ট ১৫, ২০২১ ১২:৩০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ব্যতিক্রম উদ্যোগে দেড় লাখ মানুষের কাছে শোক দিবসের বার্তা দিয়ে ভয়েস কল পাঠিয়েছেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোস্তফা আশীষ ইসলাম। রোববার (১৫ আগস্ট) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। ১৯৭৫ সালের এই দিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে নিহত হন। ঝিকরগাছা ও চোগাছাবাসীর মতো আমি মোস্তফা আশীষ ইসলাম, সদস্য যশোর জেলা আওয়ামী লীগ আজ জাতির জনকের শোকার্ত পরিবারের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।

বিজ্ঞপ্তিতে তিনি বলেন, আসুন বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের প্রতি আমাদের অবিচল আস্থা অব্যাহত রাখি। জয়বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।

শোক দিবসের সকালে পাঠানো ভয়েস কলে আপ্লুত যশোরের ঝিকরগাছা ও চোগাছা উপজেলার বাসিন্দারা। মুঠোফোনে পাওয়া এমন বার্তায় উজ্জীবিত নেতাকর্মীরা। প্যানা, ব্যানার-ফেস্টুন আর তোরণের সনাতনী পদ্ধতির বাইরে ডিজিটাল বাংলাদেশে ডিজিটাল প্রচারণায় এক ক্লিকেই দেড় লাখ মানুষের কাছে পাঠানো হয়েছে ভয়েস কল। এ উদ্যোগের জন্য সবার কাছে প্রশংসিত হয়েছেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তফা আশীষ ইসলাম।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, শোকাবহ আগস্টের শোককে শক্তিতে রূপান্তর করে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার শপথে বিনম্র শ্রদ্ধায় পালিত হচ্ছে জাতীয় শোক দিবস। এই দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে ও তার নেতৃত্বে অবিচল থাকতে যশোরে নেওয়া হয়েছে এ নান্দনিক উদ্যোগ।

তবে ঝিকরগাছা ও চোগাছা উপজেলার নেতাকর্মীরা জানান, এটিই যে প্রথম ডিজিটাল প্রচারণা তা কিন্তু নয়। প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণার পর থেকেই বারবার যশোরে আলোচিত হয়েছে ডিজিটাল প্রচারণার বিষয়টি। আগে মোস্তফা আশীষ ইসলামের বাবা সাবেক প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম শেখ হাসিনার উন্নয়ন কার্যক্রম, তার বার্তা, অপপ্রচার রোধ আর করোনাকালে নেতাকর্মীদের সুরক্ষায়ও এমন ডিজিটাল প্রচারণায় সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখতেন। এ ডিজিটাল প্রচারণা তাই তাদের কাছে নতুন কিছু নয়, বরং তারা জাতীয় দিবস কিংবা কোনো উপলক্ষ এলে এমন কিছুর অপেক্ষায় থাকেন।

উদ্যোগের বিষয়ে যশোর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তফা আশীষ ইসলাম বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ মানেই সবার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকা। প্রধানমন্ত্রী আমাদের দেখিয়েছেন অতিমারির মধ্যেও কীভাবে সবার সঙ্গে ডিজিটালি কানেক্টেড থাকতে হয়। রাষ্ট্রের গতিশীলতায় তিনি দুঃসময়ের মধ্যেও ১৭ মাসে ১৫শ ৫৮টি ডিজিটাল সভা করেছেন। ডিজিটালি নেতৃত্ব কীভাবে দিতে হয় তিনি আমাদের শিখিয়েছেন। সেই মন্ত্রে মাঠপর্যায়ে আমরা জাতির জনকের আদর্শের সৈনিক হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি।

 

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।