1. [email protected] : dailybibartan :
  2. [email protected] : Boni Amin : Boni Amin
রাণীশংকৈলে শীত কালীন আগাম সবজি চাষ ভালো দাম থাকায় কৃষকের মুখে হাসি
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৮:৩৯ পূর্বাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি:
সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে সরাসরি যোগাযোগ করুন : 01714218173 email: [email protected]
শিরোনাম:
কঠোর ‘লকডাউনে’ বদলে গেছে খুলনা! পাথরঘাটায় হরিণের চামড়া-মাংস উদ্ধার সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্য নিতে গেলে সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত বরগুনায় দুই ইউপি সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত-১০ সুমি’জ হট কেক’র বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা বরগুনা সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক সংস্কৃতিসেবীদের মাঝে সহায়তা প্রদান তালতলীতে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে দেবীদ্বারে আলোর পাঠশালায় বই ও ব্যাগ বিতরণ দেবীদ্বারে ২০ মাস বয়সি আমির হামজার রহস্যজনক মৃত্যু জি, টি ডিগ্রী কলেজে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উন্নয়নে আর্থিক অনুদান

রাণীশংকৈলে শীত কালীন আগাম সবজি চাষ ভালো দাম থাকায় কৃষকের মুখে হাসি

মাহাবুব আলম, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি
  • নিউজ প্রকাশ: সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৮৯ বার
বিবর্তন min
নিউজটি শেয়ার করুন..

ঠাকুরগাঁওয়ে রাণীশংকৈল উপজেলায় চলতি বছরে শীত কালীন সবজি ফুলকপি ও বাঁধাকপির বাম্পার ফলন এবং বাজারে ভাল দাম থাকায় হাসি ফুটেছে কৃষকের মুখে।

উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে আগাম শীতকালীন সবজি হিসেবে ফুলকপির দাম কেজি প্রতি ৫৫-৬৫ টাকা ও বাঁধাকপি ৫০-৬০ টাকা থাকায় উপজেলার হোসেনগাঁ ইউনিয়নের পদমপুর (মিলপাড়া) গ্রামের লিটন আলী জানান, গতবছর আবাদের চেয়ে এবার অনেক বেশি ফুলকপি ও বাঁধাকপি আবাদ হয়েছে। প্রতিমন ফুলকপি পাইকারী দরে ২ হাজার থেকে ২২ শত টাকা এবং বাঁধাকপি ১৮ শত থেকে ২ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এবং খরচ বাদ দিয়ে বেশ মুনাফা পাচ্ছি আমরা ।

( ৯ নভেম্বর সোমবার সকালে )  উপজেলার ডায়াবেটিক মোড়, পদমপুর, রাউতনগড়সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকার সরেজমিন গিয়ে দেখা যায় মাঠ থেকেই সবজি ব্যবসায়ীরা কপি ক্রয় করছেন। এছাড়াও রংপুর, বগুড়া, ঢাকা ও সিলেটের পাইকাররা এ উপজেলা থেকে আগাম সবজি হিসেবে বাঁধাকপি ও ফুলকপি ভোর রাত থেকে প্রতিদিনের ন্যায় ট্রাকযোগে ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছেন।

জানা গেছে এবার উপজেলার বিরাশী, উমরাডাঙ্গী, উত্তরগাঁও মহলবাড়ী, কলিগাঁ, ভান্ডারাসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক কপিচাষ হয়েছে।

উপজেলায় কর্মরত সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের উপ-সহকারি কৃষি অফিসার গণ এসব কৃষকদের সাথে সার্বিক যোগাযোগের মাধ্যমে সু-পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন প্রান্তিক কৃষকেরা।

তাঁরা জানান মারবেল, মুক্তি, ম্যাগনেট-১২, ভিক্টোরী জাতের ফুলকপি ও কেকে ক্রশ, ট্রপিকল্যান্ড, কুইকার , সুপার সেট জাতের বাঁধাকপি এ অঞ্চলে বেশ জনপ্রিয়।
<span;>উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সঞ্জয় দেবনাথ বলেন, এই উপজেলার মাটি ফুুলকপি ও বাঁধাকপি চাষের জন্য বেশ উপযোগী।

এ বছর এ উপজেলায় ৪০০ হেক্টর ফুলকপি ও ২০০ হেক্টর বাঁধাকপির আবাদ হয়েছে। আমরা চাষিদেরকে সার্বক্ষণিক পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি। আশা করা যায় আবহাওয়া অনুকুলে থাকলে চাষিরা বেশিদামে এসব সবজি বিক্রি করে যথেষ্ট লাভবান হবেন।


নিউজটি শেয়ার করুন..
এ জাতীয় আরো সংবাদ..

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন