logo
ঢাকাশুক্রবার , ৪ ডিসেম্বর ২০২০

জেদের বশে সিনেমায়, প্রথমবারেই বাজিমাত স্কলাস্টিকা ছাত্রীর

বিনোদন ডেস্ক | দৈনিক বিবর্তন.কম
ডিসেম্বর ৪, ২০২০ ৬:৪০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সুনেরাহ বিনতে কামাল পড়াশোনা করেছেন ইংলিশ মিডিয়ামে। স্কলাস্টিকা স্কুলের ওই ছাত্রী পড়াশোনা চলা অবস্থাতেই শোবিজাঙ্গনে পা রাখেন। অনেকটা জেদের বশেই সিনেমাঙ্গনে পা রাখেন তিনি। তার প্রথম সিনেমা ন’ডরাই দিয়েই তিনি বাজিমাত করেছেন। ছবিটি মুক্তির পর থেকেই আলোচনায় আসেন সুনেরাহ। সার্ফিং নিয়ে দেশে প্রথম নির্মিত ওই সিনেমায় অভিনয় দর্শকের নজর কাড়ে। ওই একটি সিনেমা রাতারাতি বদলে দিয়েছে ‍সুনেরাহর জীবন। নিয়মিত সিনেমার চিত্রনাট্য হাতে পেতে থাকেন তিনি। করোনাভাইরাস মহামারি না এলে হয়তো এতদিনে আরও কিছু সিনেমায় অভিনয়ের ঘোষণা দিয়ে ফেলতেন সুনেরাহ। কিন্তু সেটা হয়নি। আপাতত স্ক্রিপ্ট পড়ার দিকেই মনোযোগ তার। এবার ২০১৯ সালের সেরা চলচ্চিত্রের পুরষ্কার পেয়েছে ‘ন ডরাই। এতে সেরা অভিনেত্রীর পুরষ্কার পাচ্ছেন সুনেরাহ।

জানা গেছে, সুনেরাহ বড় হয়েছেন ঢাকায়। পড়েছেন ঢাকার উত্তরার স্কলাসটিকা স্কুলে। স্কুলে পড়ার সময়ই ফটোশুটে আগ্রহ তৈরি হয়। বন্ধুদের সঙ্গে মাঝে মধ্যেই দারুণ সব ছবি তোলেন।

স্কুলের পাশেই ছিল পোশাকের ব্রান্ড এসটেসি। সেটার ওপরে ছিল বিশাল এক বিলবোর্ড। সেটার নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় সুনেরাহকে এক বন্ধু বলেন, ‘কীসব ছবি তুলিস তুই! জীবনে কখনো এসটেসির মডেল হতে পারবি?’

তখনই জেদ চেপে যায় সুনেরাহ’র। তবে শুধু মডেল নয় সিনেমা করে দেখিয়ে দিয়েছেন তিনি। আর প্রথম ছবিতেই তিনি বাজিমাত করেছেন। অন্যদিকে এসটেসি দিয়েই র‌্যাম্প মডেলিংয়ে যাত্রা করেন সুনেরাহ। পোশাকের মডেল হওয়ার জন্য ডাকও পাচ্ছেন। কিন্তু এসটেসি ছাড়া অন্য কোনো কাজ করতে নারাজ তিনি। সুনেরাহ এখন এসটেসির অ্যাপারেল ম্যানেজার অ্যান্ড ইন হাউস স্টাইলিস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তবে পোস্ট থাকলেও এসটেসির ক্রিয়েটিভ ব্রান্ডিং ও মার্কেটিংয়ের কাজগুলো তিনি করেন।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।