1. [email protected] : dailybibartan :
  2. [email protected] : Boni Amin : Boni Amin
সুমি'জ হট কেক'র বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি:
সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে সরাসরি যোগাযোগ করুন : 01714218173 email: [email protected]
শিরোনাম:
কঠোর ‘লকডাউনে’ বদলে গেছে খুলনা! পাথরঘাটায় হরিণের চামড়া-মাংস উদ্ধার সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্য নিতে গেলে সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত বরগুনায় দুই ইউপি সদস্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত-১০ সুমি’জ হট কেক’র বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা বরগুনা সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক সংস্কৃতিসেবীদের মাঝে সহায়তা প্রদান তালতলীতে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়েছে দেবীদ্বারে আলোর পাঠশালায় বই ও ব্যাগ বিতরণ দেবীদ্বারে ২০ মাস বয়সি আমির হামজার রহস্যজনক মৃত্যু জি, টি ডিগ্রী কলেজে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উন্নয়নে আর্থিক অনুদান

সুমি’জ হট কেক’র বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকির মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • নিউজ প্রকাশ: মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
  • ৫৬ বার
সুমি'জ হট
নিউজটি শেয়ার করুন..

১০ কোটি টাকা ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগে রাজধানীর উত্তরায় সুমি’জ হট কেক’র বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৮ জুন) ভ্যাট ফাঁকির উদ্দেশ্যে প্রকৃত বিক্রয় তথ্য গোপন এবং মেশিনে প্রস্তুতকৃত কেক ‘হাতে তৈরি’ ঘোষণা দিয়ে ভ্যাট ফাঁকির দায়ে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে এই মামলা দায়ের করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিরীক্ষা, গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের (মূল্য সংযোজন কর) মহাপরিচালক ড. মইনুল খান।

রাজধানীসহ সারাদেশে এই কেক প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটির ২৬টি বিক্রয়কেন্দ্র রয়েছে। এসব বিক্রয়কেন্দ্রে কারখানায় উৎপাদিত পণ্য সরবরাহ করা হয়।

ভ্যাট ফাঁকির সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে গত ২ জুন সংস্থার উপ-পরিচালক নাজমুন নাহার কায়সার ও ফেরদৌসী মাহবুবের নেতৃত্বে ভ্যাট গোয়েন্দার একটি দল সুমি’জ হট কেক লিমিটেডের কারখানার প্রধান কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করে।

ভ্যাট গোয়েন্দা জানায়, প্রতিষ্ঠানটি ‘হাতে তৈরি’ কেকের ঘোষণা দিলেও মূলত মেশিনে কেক প্রস্তুত করে আসছে। মেশিনে তৈরির কেক এর উপর ১৫ শতাংশ হারে ভ্যাট প্রযোজ্য। আর হাতে তৈরি করলে তা ৫ শতাংশ। এতদিন সুমি’জ হট কেক ৫ শতাংশ হারে ভ্যাট দিয়েছে।

ভ্যাট গোয়েন্দা আরও জানায়, প্রতিষ্ঠানের ২০১৯ সালের জুলাই থেকে চলতি বছরের এপ্রিল পর্যন্ত ৭ কোটি ১৩ লাখ ১৪৩ টাকা ভ্যাট পরিহার করেছে এবং এই পরিহারকৃত ভ্যাট এর উপর সুদ বাবদ ৩ কোটি ৩৮ লাখ ৬৪ হাজার ৭৬৫ টাকাসহ সর্বমোট ১০ কোটি ৫১ লাখ ৬৪ হাজার ৯০৯ টাকা আদায়যোগ্য হবে।

তদন্তে উদঘাটিত ভ্যাট ফাঁকির টাকা আদায়ের আইনগত কার্যক্রম গ্রহণের জন্য মামলাটি ঢাকা উত্তর ভ্যাট কমিশনারেটে পাঠানো হবে বলেও জানায় ভ্যাট গোয়েন্দা।


নিউজটি শেয়ার করুন..
এ জাতীয় আরো সংবাদ..

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন