অতিরিক্ত সাদাস্রাব কেন হয়? করণীয় কী?
logo
ঢাকা, বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অতিরিক্ত সাদাস্রাব কেন হয়? করণীয় কী?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
আগস্ট ১, ২০২৩ ১২:০০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

নিজের শরীর নিয়ে নারীরা সবসময় উদাসীন। অনেক স্বাস্থ্য সমস্যাই তারা এড়িয়ে যান লজ্জায়। এমনকি চিকিৎসাও করান না। এমনই একটি সমস্যা অতিরিক্ত সাদাস্রাব যাওয়া। অল্প পরিমাণ সাদাস্রাব যাওয়া কোনো সমস্যা নয়। তবে এর পরিমাণ যদি খুব বেশি হয় তবে তা যথেষ্ট উদ্বেগের কারণ হতে পারে।

সাদাস্রাব কী? 

সাদাস্রাব বা লিউকোরিয়া প্রায় প্রতিটি নারীরই হয়। শারীরবৃত্তীয় বা জীবন শৈলী সংক্রান্ত কারণে এটি হলে দুশ্চিন্তার কোনো কারণ নেই। তবে উদ্বেগের কারণ হয়, যখন এর রঙ, পরিমাণ বা গন্ধ অস্বাভাবিক হয়। স্রাবের রঙ ধূসর, বাদামী, সবুজ বা হলুদ হলে কিংবা দুর্গন্ধযুক্ত হলে গাফিলতি না করে সচেতন হওয়া জরুরি।

woman

সাদাস্রাব কখন বেশি হওয়া স্বাভাবিক?

কিছু কিছু সময় নারীদের সাদাস্রাবের পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়া স্বাভাবিক। পিরিয়ডের সময়, মানসিক চাপ থাকলে এর তারতম্য হতে পারে। বয়ঃসন্ধিকালে, গর্ভাবস্থায় থাকাকালীন, যৌন মিলনের সময়, এমনকি যৌন আবেগের কারণেও নারীর শরীর থেকে সাদাস্রাব নির্গত হতে পারে। এখানেই শেষ নয়। নারী হস্তমৈথুন করলে কিংবা ডিম্বাণু নিঃসরণকালেও এটি দেখা দিতে পারে। অনেকসময় ইস্ট্রোজেন হরমোনের প্রভাবেও সাদাস্রাব দেখা দেয়।

অতিরিক্ত সাদাস্রাব কেন হয়? 

পুষ্টির অভাব, ভুল জীবনযাত্রা কিংবা অপর্যাপ্ত বিশ্রামের কারণে অস্বাভাবিক সাদাস্রাব নির্গত হতে পারে। অপরিচ্ছন্ন অন্তর্বাস পরা, পোশাক স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে রাখা, পিরিয়ডের সময় এক স্যানিটারি ন্যাপকিন দীর্ঘক্ষণ পরা ইত্যাদি কারণে এটি হয়। এসব কারণে ভ্যাজাইনাল ইনফেকশনও হতে পারে। অনেক নারীই গর্ভনিরোধক ওষুধ খান। এর কারণে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

কেবল শরীর নয় এর জন্য মনও দায়ী। অর্থাৎ মানসিক চাপ বা অবসাদে ভুগলেও অতিরিক্ত সাদাস্রাবের সমস্যা হতে পারে।

woman

অতিরিক্ত সাদাস্রাব হলে করনীয় 

কিছু খাবার রয়েছে যারা অতিরিক্ত সাদাস্রাব যাওয়া কমায়। চলুন খাবারগুলো সম্পর্কে জেনে নিই-

মেথি

সেদ্ধ মেথি বীজ খেলে সাদাস্রাবের সমস্যার সমাধান হতে পারে। হাফ লিটার পানিতে কিছুটা মেথি সেদ্ধ করে খেয়ে নিন। অল্পদিনেই ফল পাবেন।

okra

ঢেঁড়স

সাদাস্রাবের ঘরোয়া চিকিৎসার সবচেয়ে ভালো প্রতিকার ঢেঁড়স। কয়েকটি ঢেঁড়স পানিতে সেদ্ধ করে খান। প্রয়োজনে দইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন।

ধনেপাতা 

অল্প পরিমাণ ধনেপাতা পানিতে ভিজিয়ে রেখে সকালে পানিসহ খালি পেটে খেয়ে নিন। অর্থাৎ রাতে ভেজানো ধনেপাতার জুস পান করুন। এটি সাদাস্রাব এর চিকিৎসার জন্য সবচেয়ে সহজ এবং নিরাপদ ঘরোয়া উপায়।

আমলকী

ভিটামিন সি যুক্ত এবং পুষ্টিসমৃদ্ধ আমলকী বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। নিয়মিত আমলকী খেলেও সাদাস্রাবের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

ভাতের মাড়

অতিরিক্ত সাদাস্রাবের সমস্যায় ভুগলে নিয়মিত ভাতের মাড় খেতে পারেন। সাদাস্রাব দূর করতে এটি দারুণ কাজ করে।

এরপরও সমাধান না মিললে লজ্জা না পেয়ে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।