রংপুর সিটি নির্বাচনে ১৪৩ প্রার্থীর মনোনয়ন সংগ্রহ
logo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৮ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

রংপুর সিটি নির্বাচনে ১৪৩ প্রার্থীর মনোনয়ন সংগ্রহ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নভেম্বর ১৭, ২০২২ ১০:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে অংশ নিতে ১৪৩ জন সম্ভাব্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এর মধ্যে মেয়র পদে তিনজন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১০২ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। 

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব আবদুল বাতেন।

রংপুর আঞ্চলিক নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ৭ নভেম্বর তফসিল ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকে  মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু হয়। গেল ১০ দিনে সর্বমোট ১৪৩ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়র পদে জাতীয় শ্রমিক লীগের রংপুর মহানগরের সাধারণ সম্পাদক এম এ মজিদ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর (পুরুষ) পদে ৪১ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর (নারী) পদে ১৩ জন মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত রংপুর আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন বর্তমান প্যানেল মেয়র ও ১৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাহামুদুর রহমান টিটু, ২০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌহিদুল ইসলাম, ২৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সেকেন্দার আলী, ১৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আমিনুর রহমান, ২২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মিজানুর রহমান মিজু, ১২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আফজাল হোসেন, ২৮ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী নুর ইসলাম প্রমুখ।

প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা আচরণবিধি মেনে কোনো রকম শোডাউন ছাড়াই দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বলে জানিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব আবদুল বাতেন।

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার মেয়র পদে এম এ মজিদ মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪১ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১৩ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এর আগে বর্তমান মেয়র ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের রংপুর মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আমিরুজ্জামান পিয়াল মনোনয়নপত্র কিনেছেন। সব মিলিয়ে ১০ দিনে ১৪৩ জন সম্ভাব্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

প্রসঙ্গত, পৌরসভার ১৫টি ওয়ার্ডের সঙ্গে বর্ধিত এলাকার (সাবেক সদর উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন থেকে) আরও ১৮টি ওয়ার্ড যুক্ত করে ৩৩টি ওয়ার্ড নিয়ে ২০১২ সালের ২৮ জুন রংপুর সিটি করপোরেশন গঠন করা হয়। এরপর প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ওই বছরের ২০ ডিসেম্বর। এতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সরফুদ্দিন আহমেদ ঝণ্টু প্রথম নগরপিতা হিসেবে নির্বাচিত হন। বর্তমানে এই সিটির জনসংখ্যা প্রায় ১০ লাখ। আর ভোটার রয়েছেন চার লাখেরও বেশি। ২০১৭ সালের ২১ ডিসেম্বর দ্বিতীয় নির্বাচনের সময় ভোটার ছিল ৩ লাখ ৯৩ হাজার ৯৯৪ জন। এতে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা মেয়র নির্বাচিত হন।

এবার তৃতীয় বারের মতো রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন ২৯ নভেম্বর। ১ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র বাছাই এবং ৮ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ তারিখ। প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে পরের দিন ৯ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দের পর প্রার্থীরা ১৭ দিন প্রচার-প্রচারণার সুযোগ পাবেন। ২৭ ডিসেম্বর ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে সকাল সাড়ে ৮টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত এক টানা ভোটগ্রহণ করা হবে।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।