খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার ‘উন্নতি’ দেখছেন না চিকিৎসকরা
logo
ঢাকা, বুধবার, ২৬শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার ‘উন্নতি’ দেখছেন না চিকিৎসকরা

অনলাইন ডেস্ক
অক্টোবর ৩, ২০২৩ ৯:০৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

লিভার সিরোসিসসহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রায় দুই মাস ধরে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। মূল শারীরিক সমস্যা তো কাটছেই না বরং সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর শরীরে নতুন নতুন সমস্যার উপসর্গ দেখা দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসকরা।

উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে পাঠানোর পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। যদিও পরিবারের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর যে আবেদন করা হয়েছে তা নাকচ করে দিয়েছে সরকার। ফলে আপাতত বাইরে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন না বিএনপি প্রধান।

গত ৯ আগস্ট থেকে হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের উন্নতির কোনো লক্ষণ দেখছেন না জানিয়ে তার মেডিকেল বোর্ডের একজন সদস্য বলেছেন, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ধীরে ধীরে অবনতির দিকেই যাচ্ছে।

এই বোর্ডর সদস্যরা জানিয়েছেন, খালেদা জিয়ার লিভার, কিডনি, হৃদ্‌যন্ত্র, ফুসফুস ইত্যাদি প্রত্যঙ্গে নতুন নতুন সমস্যা বা উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। নতুন নতুন উপসর্গ বা সমস্যা যা দেখা দিচ্ছে. তা প্রশমন করা হচ্ছে বা কোনোভাবে ঠেকিয়ে রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে, যাতে রোগীর কষ্ট কমানো যায়। এ পর্যন্ত তাকে তিন দফায় সিসিইউতে নিতে হয়।

বিএনপি নেত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক এ জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, খালেদা জিয়া এখন বেশ অসুস্থ। তার যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না।

বোর্ডের একজন সদস্য বলেন, ৭৮ বছর বয়সী গুরুতর অসুস্থ সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার লিভার দেশে প্রতিস্থাপন করা সম্ভব নয়। ফলে তাকে যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু তার লিভার সিরোসিসের কারণে খালেদা জিয়ার কিডনি, হৃদ্‌যন্ত্র, ফুসফুসের জটিলতা বেড়েই চলেছে।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।