বরগুনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন এক নারীর!
logo
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরগুনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ করে সংবাদ সম্মেলন এক নারীর!

শাজনুস শরীফ, বরগুনা প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ৯, ২০২৩ ৮:২০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বরগুনা জেলায় দোকান ঘর দখল করে উল্টো বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করার অভিযোগ উঠেছে সদর উপজেলার ০৬ নং বুড়িরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অ্যাড. হুমায়ুন কবিরের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টায় বরগুনা প্রেসক্লাব মিলায়তনে সংবাদ সম্মেলন করেন ০৬ নং বুড়িরচর ইউনিয়নের মোঃ শাজাহান সিদ্দিকের মেয়ে মোসাঃ সোনিয়া আক্তার আঁখি।

সংবাদ সম্মেলনে সোনিয়া আক্তার আঁখি বলেন, নির্বাচনের সময় আমার জমিতে পরিত্যক্ত একটি ঘর নির্বাচনীয় ক্যাম্প হিসেবে ব্যবহার করতে দিয়েছিলাম অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবিরকে। নির্বাচনের পর ফেরত দেওয়ার শর্তে ঘরটি তাকে দিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর আমাকে ফেরত না দিয়ে এখনো ভোগ দখল করে আসছে। ঘরটি তিনি ফেরত দেওয়ার মর্মে একটি চুক্তিনামায় আমার স্বাক্ষর নিয়ে তার নিজের নামে করে নিয়েছে। তারপরেও চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট হুমায়ুন কবিরকে ঘরটি বারবার ফেরত চাইলে তিনি আমাকে বিভিন্ন ভাবে তার লোকজন দিয়ে মারধর ও ভয় ভীতিসহ হুমকি প্রদান করে আসছেন।

তিনি আরো বলেন, চলতি বছরের গত ৩১ আগষ্ট সকাল অনুমান ০৮ ঘটিকার সময় আমার বসত বাড়ির সামনে বর্তমান চেয়ারম্যান অ্যাড. হুমায়ুন কবির(৫০),ও স্থানীয় প্রভাবশালী মোঃ কামাল হাওলাদার (৪৫), আমাকে মারধর করে ও খুন জখমের হুমকি প্রদান করে। এ ঘটনায় আমি বাদী হইয়া বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করার জন্য আমার নিজ বাড়ি থেকে রওনা করে চলতি বছরের ৩ সেপ্টেম্বর সকাল অনুমান সাড়ে ৮ টার দিকে পুরাকাটা ফেরীঘাট স্ট্যান্ডে পৌছাইলে আমার সামনে এসে অযথা তর্কের সৃষ্টি করে গালমন্দ করতে থাকে।

আমি প্রতিবাদ করলে চেয়ারম্যানের ড্রাইভার জাহাঙ্গীর আমাকে মারপিট করে লাঠি নিয়া আমার দিকে আসে। সে আমাকে বরগুনা আসতে দিবে না, কোন মামলাও করতে দিবে না। আমি যদি কোন মামলা করি তাহালে চেয়ারম্যান এর ড্রাইভার জাহাঙ্গীর আমাকে খুন এবং আমার বাবাকে উলঙ্গ করে বাজারে বাজারে ঘুরাইবে। আমার স্বামীকে মারপিট করে উল্টো তার নামে মামলা দিবে এমন হুমকি দেয়। আমার ঘর বাড়ি আগুন দিবে এবং আমাকে ও আমার পরিবারকে এলাকা ছাড়া করবে বলে হুমকি প্রদান করে।

আমি এবিষয়ে বরগুনা সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। যার নাম্বার ১০৭। এরপরও আমার ও আমার পরিবারের কাছে বিভিন্ন লোকজন পাঠিয়ে নানা ভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। এ অবস্থায় আমি কোন পথ খুঁজে না পেয়ে নিরুপায় হয়ে প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের সাথে সংবাদ সম্মেলন করতে বাধ্য হয়েছি। সকল গণমাধ্যম ভাইদের মাধ্যমে আমি একটা সঠিক বিচার দাবি করছি। এবং আমি আমার পরিবার পরিজন নিয়ে যেন শান্তিতে থাকতে পারি। এটাই আপনাদের কাছে নিরুপায় হয়ে বিনয়ের সহিত দাবি করছি।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।