এবার তামান্নার পাশে দাঁড়ালেন দুই এমপি
logo
ঢাকা, রবিবার, ১৪ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩০শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার তামান্নার পাশে দাঁড়ালেন দুই এমপি

জেলা প্রতিনিধি, যশোর
ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২২ ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সব বাধা পেরিয়ে এক পায়ে চমক দেখানো সেই তামান্নার পাশে দাঁড়ালেন যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিন ও সাতক্ষীরা-৪ আসনের জগলুল হায়দার। বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে যশোর শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় তামান্নার ভাড়া বাসায় অভিনন্দন জানাতে ছুটে যান তারা। 

পা দিয়ে লিখে টানা চতুর্থবার জিপিএ-৫ পাওয়ায় তামান্নাকে তারা মিষ্টিমুখ করায়। একইসঙ্গে তামান্নার উচ্চ শিক্ষা ও পরবর্তী স্বপ্ন পূরণে নগদ অর্থসহায়তা প্রদানের সঙ্গে যেকোনো পরিস্থিতিতে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রথমে ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দকে সঙ্গে নিয়ে তামান্নার বাড়িতে যান যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) অধ্যাপক ডা. নাসির উদ্দিন। সেখানে তামান্নাকে মিষ্টিমুখের সঙ্গে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান তিনি।

এ সময় নাসির উদ্দিন তামান্নার উদ্দেশ্যে বলেন, অদম্য ইচ্ছাশক্তি থাকলে সব প্রতিকূলতাকে জয় করা সম্ভব। শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকা সত্ত্বেও ধারাবাহিকভাবে পিইসি, জেএসসি, এসএসসির মতো এইচএসসি পরীক্ষায়ও জিপিএ-৫ প্রাপ্তি একটি অনন্য অর্জন। এ সফলতা দেশের প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের অনুপ্রেরণা জোগাবে। তামান্নার উচ্চ শিক্ষা ও পরবর্তী স্বপ্ন পূরণে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী পরিবার সব সময় পাশে থাকবে বলেও তিনি আশ্বাস দেন।

এ সময় ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম বলেন, ইতোমধ্যে ঝিকরগাছা সংসদের নির্দেশনা ও উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে তামান্নার বাড়ির পাশের রাস্তা সলিং করা হয়েছে। তামান্নাকে ২ লাখ ৫৮ হাজার টাকা ব্যয়ে এমপি নাসির একটি ঘর নির্মাণ করে দিয়েছেন। একইসঙ্গে উপজেলা পরিষদ থেকে তাকে বিভিন্ন সহায়তা দেওয়া অব্যাহত রয়েছে। আগামীতেও ঝিকরগাছা উপজেলা প্রশাসন তামান্নার স্বপ্ন পূরণে পাশে থাকবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ঝিকরগাছা পৌরসভার মেয়র মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহবুবুল হক, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চৌধুরী রমজান শরীফ বাদশা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজা প্রমুখ।

এদিকে বিকেলে তামান্নাকে শুভেচ্ছা জানাতে আসেন সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য জগলুল হায়দার। তামান্নাকে তিনি ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান ও মিষ্টি মুখ করান। এ সময় তামান্নাকে নগদ ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন।

তিনি বলেন, তামান্না আমাদের সমাজের অনুকরণীয়। সেইসঙ্গে অনুপ্রেরণার অনন্য উদাহরণ। তামান্নার স্বপ্ন পূরণে পাশে দাঁড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ নানা ব্যক্তি। তার স্বপ্ন পূরণে আমরা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পাশে থাকব।

তামান্না বলেন, আপনাদের এই উপস্থিতি আমাকে অনেক সাহস যোগাচ্ছে। আমি আমার স্বপ্ন পূরণের পথে এইসব মানুষকে পাশে পাবো কখনো চিন্তাও করেনি। খুশিতে আমার বুকটা ভরে যাচ্ছে। আমি যেন আমার স্বপ্ন পূরণ করতে পারি।

প্রসঙ্গত, যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া আলীপুরের রওশন আলী ও খাদিজা পারভীন শিল্পী দম্পতির তিন সন্তানের মধ্যে বড় তামান্না নূরা। তামান্না যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ডিগ্রি কলেজ থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এবার উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন। রোববার প্রকাশিত ফলাফলে এসএসসির মতো এইচএসসিতেও জিপিএ-৫ পেয়েছেন তিনি।

এর আগে তামান্না ২০১৯ সালে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া জনাব আলী খান মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। একই ফল করেছিলেন পিইসি ও জেএসসিতেও। গত ২৪ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করাসহ দুটি স্বপ্নের কথা জানিয়ে চিঠি লিখেছিলেন তামান্না। সেই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে ১৪ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকেল ও সন্ধ্যায় পৃথক দুটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে অডিওকলে ফোন দিয়ে তামান্নাকে অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার বোন শেখ রেহেনা।

একইসঙ্গে দুই বোন তামান্নার স্বপ্ন পূরণে যেকোনো সহযোগিতার আশ্বাস দেন। প্রধানমন্ত্রী তামান্নাকে তার স্বপ্ন পূরণে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে আবেদন করার পরামর্শ দেন। সেই পরামর্শে বুধবার সকালে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টে আবেদন করেছেন তিনি। এছাড়া মঙ্গলবার বেলা ১১টা ১৫ মিনিটে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি তামান্নার সঙ্গে দীর্ঘ ২৪ মিনিট ৩০ সেকেন্ড কথা বলেন। শিক্ষামন্ত্রী তামান্নাকে ভার্সিটিতে মাইক্রোবায়োলোজি বিষয় নিয়ে পড়াশোনা করার পরামর্শ দেন এবং খুব তাড়াতাড়ি শিক্ষামন্ত্রী তামান্নার সঙ্গে দেখা করতে যশোরে আসবেন বলে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।