ফের জামায়াতের আমির ডা. শফিকুর রহমান
logo
ঢাকা, বুধবার, ২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফের জামায়াতের আমির ডা. শফিকুর রহমান

নিজস্ব প্রতিবেদক
অক্টোবর ২৭, ২০২২ ৪:৩৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

২০২৩-২০২৫ কার্যকালের জন্য ডা. শফিকুর রহমান পুনরায় বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর আমির নির্বাচিত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর ) দুপুরে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা আবদুল হালিম ঢাকা পোস্টকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দলটির নির্ভরযোগ্য একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, চলতি মাসের অক্টোবর জামায়াতের রোকনদের ভোট-গ্রহণ প্রক্রিয়া শেষ হয়। ২৫ অক্টোবর ভোট গণনা শুরু হয়। তবে কত ভোটে শফিকর রহমান পুনরায় আমির নির্বাচিত হয়েছে তা জানা যায়নি।

জানা গেছে, শপথ গ্রহণের পর আমির দলের নেতাকর্মীর উদ্দেশে বক্তব্য দেবেন। এরপর নির্বাহী পরিষদের সঙ্গে বৈঠক করে দলের সেক্রেটারি জেনারেল মনোনীত করবেন।

জামায়াতের দায়িত্বশীল সূত্রগুলো জানায়, ডা. শফিকুর রহমান ১৯৫৮ সালের ৩১ অক্টোবর মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ভাটেরা ইউনিয়নে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮৩ সালে সিলেট মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। জামায়াতের নতুন আমির ছাত্রজীবনে ইসলামী ছাত্রশিবিরের সিলেট শহর শাখার সভাপতি ছিলেন। তিনি ১৯৮৫ সালে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য হন। ডা. শফিক ১৯৮৬ থেকে ’৮৮ সাল পর্যন্ত সিলেট জেলা শাখা জামায়াতের সেক্রেটারি ও ১৯৮৯ থেকে ৯১ সাল পর্যন্ত সিলেট জেলা জামায়াতের নায়েবে আমির এবং ১৯৯১ থেকে ৯৮ পর্যন্ত সিলেট জেলা জামায়াতের আমির, ১৯৯৮ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত সিলেট মহানগরী জামায়াতের আমির হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৯৮ সালে জামায়াতের কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য মনোনীত হন। ২০১০ সাল থেকে জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল, ২০১১ থেকে কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য এবং ওই বছরের সেপ্টেম্বর মাস থেকে ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল হন। ২০১৭ থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করছিলেন। শফিকুর রহমানের স্ত্রী ডা. আমিনা শফিক অষ্টম জাতীয় সংসদের সদস্য ছিলেন।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর ডা. শফিকুর রহমানকে আমির হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।