তালতলীতে নিজের জমি চাষ করতে গিয়ে হামলার শিকার,নারীসহ আহত ৪
logo
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তালতলীতে নিজের জমি চাষ করতে গিয়ে হামলার শিকার,নারীসহ আহত ৪

তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২ ১:১৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বরগুনার তালতলীতে নিজের ক্রয়কৃত জমিতে চাষাবাদ করতে গিয়ে প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হয়েছে ছত্তার চৌকিদারসহ তার লোকজন। এতে নারীসহ চার জন আহত হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য বরগুনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার(০৯ সেপ্টম্বর) বিকালে উপজেলার বাঁশবাড়িয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন, ছত্তার চৌকিদার(৫৫),তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম(৫০), ছেলে রিয়াজ চৌকিদার(৩৫) ভাইর ছেলে রোকন(২৫)।

জানা যায়, উপজেলার পঁচাকোড়ালিয়া ইউনিয়নের জয়ালভাঙা এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য ছিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস প্রায় ৩০ বছর আগে বিদেশ যাওয়ার সময় ৬৬ শতাংশ জমি বিক্রয় করেন পাশবর্তী বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মো.ছত্তার চৌকিদার কাছে। ঐ জমি ছত্তার চৌকিদারকে ভোগদখলেও বুঝি দেন সিদ্দিকুর রহমান। এরপরে সিদ্দিকুর রহমান বিদেশ থেকে এসে ঐ জমির বিষয়ে কোনো আলোচনা না করেই আদালতে মামলা করেন। আদালতের রায়ে ছত্তার চৌকিদার জমি পায়। এছাড়াও স্থানীয় ভাবে একাধিক সালিসি হয়েছে সেখানেও একই রায় বহাল রয়েছে। তবুও সাবেক ইউপি সদস্য ছিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে ঐ জমিতে চাষাবাদ করতে করতে প্রায়ই বাধা দিয়ে আসছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে ছত্তার চৌকিদার তার ক্রয়কৃত জমিতে চাষাবাদ করতে যায়। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ছিদ্দিকুর রহমানের ভাড়া করা ১২ থেকে ১৫ জন সন্ত্রাসীসহ হামলা চালায়। এতে নারীসহ চার জন আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে বরগুনা হাসপাতালে পাঠান স্থানীয়রা।

এবিষয়ে ক্রয়কৃত জমির মালিক ছত্তার চৌকিদার বলেন, আমি জমি ক্রয় থেকে ভোগ দখলে আছি। আমার জমির দলিল পত্র সব ঠিক আছে। প্রতিপক্ষ ছিদ্দিকুর রহমান কয়েকবার আদালত করেও কোনো ফল পায়নি। এর শত্রুতার জের ধরে আমাদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

এবিষয়ে সাবেক ইউপি সদস্য ছিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাসের ফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেনি।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।এখনো কোনো অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।