পাকিস্তানকে হারানোর রাতে ভারতের ৫ রেকর্ড
logo
ঢাকা, শনিবার, ২রা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানকে হারানোর রাতে ভারতের ৫ রেকর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ১২, ২০২৩ ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

এশিয়া কাপের গ্রুপপর্বে ভারত-পাকিস্তানের প্রথম দেখায় ছিল পাক পেসারদের দাপট। পাশার দান উল্টে সুপার ফোরে সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র দেখালেন ভারতীয় ব্যাটাররা। বিরাট কোহলি ও লোকেশ রাহুল দুজনেই করেছেন অনবদ্য সেঞ্চুরি। এর আগে আউট হওয়া দুই ব্যাটারও ঝড়ো ফিফটি পেয়েছিলেন। যা ওয়ানডেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয়বারের মতো সর্বোচ্চ ৩৫৬ রানের সংগ্রহ এনে দেয় রোহিত শর্মার দলকে। এরপর ২২৮ রানের রেকর্ড জয় মিলিয়ে ম্যাচটিতে ভারত আরও পাঁচটি কীর্তি গড়েছে। 

বিরাট কোহলি শ্রীলঙ্কার কলম্বো প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামকে কতটা ভালোবাসেন, সেটি এই ভেন্যুতে তার সর্বশেষ চার ম্যাচে নজর রাখলেই বোঝা যায়। ১২৮.২০ গড় নিয়ে কলম্বোতে সর্বশেষ চার ওয়ানডেতেই সেঞ্চুরি পেয়েছেন এই মাস্টার ব্যাটার। এর মধ্যে ২০১২ সাল থেকে ২০১৭-এর মধ্যে দুটিই করেছেন স্বাগতিক লঙ্কানদের বিপক্ষে।

প্রেমাদাসায় কোহলির রানের গড় কোনো নির্দিষ্ট ভেন্যুতে যেকোনো ব্যাটারের মধ্যে সর্বোচ্চ। সর্বনিম্ন ৯ ম্যাচ কিংবা আরও বেশি ম্যাচ খেলা অন্য কোনো ব্যাটার কোনো নির্দিষ্ট ভেন্যুতে এর বেশি রান করতে পারেননি। একই ভেন্যুতে টি-টোয়েন্টিতে কোহলির গড় ৫৩.৪। যার সর্বশেষ ৬ ম্যাচে তিনি তিনটিতেই ফিফটি করেছিলেন। তবে প্রেমাদাসায় তিনি এখনও কোনো টেস্ট খেলেননি। এ তো গেল কোহলির ব্যক্তিগত রেকর্ড। ম্যাচটিতে হওয়া আরও চার কীর্তি নিচে তুলে ধরা হলো।

পাকিস্তানের বিপক্ষের ম্যাচে ভারতের ৫ রেকর্ড :

দ্রুততম ১৩ হাজার রান :

দ্রুততম ব্যাটার হিসাবে ওয়ানডে ক্রিকেটে ১৩ হাজার রান করেছেন কোহলি। স্বদেশি কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার এই মাইলফলকে পৌঁছেছিলেন ৩২১ ইনিংসে। কোহলি সেই রেকর্ড ভাঙলেন ২৬৭ ইনিংসে। এছাড়ার তিনশ’র বেশি ম্যাচ খেলা রিকি পন্টিং, মাহেলা জয়াবর্ধনে ও সনাৎ জয়সুরিয়া- এই তিন ক্রিকেটার ১৩ হাজারি ক্লাবে প্রবেশ করেছিলেন।

পাকিস্তানের বিপক্ষে সর্বোচ্চ রানের জুটি :

ম্যাচটিতে আগে ব্যাট করা ভারতের তৃতীয় উইকেটে ২৩৩ রানের জুটি গড়েন কোহলি এবং রাহুল। দুজনের অবিচ্ছিন্ন এই জুটির সংগ্রহ এশিয়া কাপে সর্বোচ্চ। এছাড়া ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে রেকর্ড রানের জুটিও এটি। এর আগে ১৯৯৬ সালে ভারতের হয়ে নভজিত সিং সিন্ধু ও শচীন শারজাহতে ২৩১ রানের জুটি গড়েছিলেন। অন্যদিকে, ২০১২ সালে ভারতের বিপক্ষে পাকিস্তানের মোহাম্মদ হাফিজ এবং নাসিম জামশেদ ২২৪ রানের জুটি গড়েছিলেন।

তবে ১৯৯৯ বিশ্বকাপে ভারতের হয়ে আরও বড় রানের জুটি আছে তৃতীয় উইকেটে। বর্তমান ভারতীয় কোচ রাহুল দ্রাবিড় ও শচীন জুটি কেনিয়ার বিপক্ষে করেছিল ২৩৭ রান।

পাকিস্তানের বিপক্ষে যৌথভাবে ভারতের দলীয় সর্বোচ্চ রান :

কোহলি-রাহুলের জোড়া সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে এদিন ওয়ানডে সর্বোচ্চ ৩৫৬ রান সংগ্রহ করেছে ভারত। এর আগে ভারত একই পুঁজি পেয়েছিল ২০০৫ সালে। একইসঙ্গে ফরম্যাটটিতে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে পাকিস্তানের বিপক্ষে সর্বোচ্চ দলীয় রানও এটি।

পুরুষদের ক্রিকেটে পাকিস্তানের বিপক্ষে ভারতের ৩৫৬ রান নবম সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

কোহলির এশিয়া কাপ রেকর্ড :

এশিয়া কাপের ১৪টি ওয়ানডে ম্যাচে চার সেঞ্চুরিতে কোহলির রানের গড় ৬৭.১৮। এমনকি এতে তার স্ট্রাইকরেট একশ’রও বেশি। টুর্নামেন্টটিতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ চারটি সেঞ্চুরি করেছেন কোহলি ও কুমার সাঙ্গাকারা। আরেক লঙ্কান ব্যাটার জয়সুরিয়া এশিয়া কাপে সর্বোচ্চ ছয়টি সেঞ্চুরি করেছিলেন। যা ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে কোহলির সামনে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ২০১২ আসরে কোহলি ১৮৩ রান করেছিলেন। যা এশিয়া কাপে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত সংগ্রহ।

দৈনিক বিবর্তন এর প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।